Bangali Connection Featured 

আম কথা

Reading Time: 1 minute
বাঙালিরা জন্ম থেকেই নিজের নামের আগে ‘ভোজনরসিক‘ বিশেষণটা সঙ্গে  নিয়ে আসেI পুজো পার্বণবিয়েবাড়িবছরের কিছু বিশেষ দিনবন্ধুদের সঙ্গে নিয়ে আড্ডাআবার একান্তে প্রিয়জনের সাথে সময়যাপনসবকিছুতেই সবার আগে মাথায় আসে ‘খাবার‘ শব্দটিI ঋতুর সাথে তাল মিলিয়ে আমিষ নিরামিষ পদের বাহারআর শেষ পাতে মিষ্টি আর ফলআর যদি সেটা গরমকাল হয় তাহলে আম ছাড়া অন্যকিছুরই জুড়ি মেলা ভারগরমের সকালের ব্রেকফাস্ট হোক বা দুপুরে লাঞ্চএই ক’টাদিনের সবসময়ের সঙ্গী কিন্তু সেই আম-ইI “আ”-এ ‘আমটি আমি খাবো পেড়ে থেকে “আম পাতা জোড়া জোড়া” আম প্রিয় বাঙালির সবকিছুতেই বারবার ফুটে ওঠে আমের প্রতি তাদের গভীর ভালোবাসাI শুধু তাই নয়কবিগুরুর লেখা “দুই বিঘে জমি”তে উল্লেখিত আম গাছটাই কিন্তু উপেনের উপস্থিতি জানান দিয়েছিলো অনেক বছর পরেও…    

শোনা যায়,  ইতিহাসের অনেককিছু সাক্ষী এই আমআগে নাকি বিভিন্ন প্রজাতির আমগাছ লাগানোর শখ ছিল রাজাদেররকমফের আমের ফলনই  হতো সেই দেশের বৃদ্ধি আর সমৃদ্ধির প্রতিফলকউপহার সামগ্রীর উপকরণ হিসাবেও আম দেওয়া নেওয়া চল ছিল    
সময়ের সাথে সাথে আমের চাহিদা বাড়লেও বদলে গেছে আমের সেই চেনা রূপটাI 
দুধ-ভাতের সাথে বাঙালিরা আজকাল আম মেখে খাওয়ার চেয়ে পছন্দ করে নামী মিষ্টির দোকানের আম-দই ,আম-ক্ষীরI শুধু তাই নাআজকাল আম-পোড়ার শরবত থেকে লস্যিসবকিছুই এখন প্যাকেট-বন্দীI ঘোড়দৌড়ে সামিল হতে গিয়ে মানুষের হাতে এখন সময় খুব অল্পতাই চটজলদি পন্থামনকে বেশি টানে আজকালতার উপর এখন নতুন নতুন রান্না শেখানোর ক্লাসযেখানে আম দিয়ে তৈরী আমিষ নিরামিষ মিশিয়ে হাজার নতুন পদের সন্ধান পাওয়া যায়কিন্তু এই সবকিছুর মধ্যেই কি হারিয়ে যাচ্ছেও না আমের নিজেস্ব স্বাদ? আমের সত্তাটারই বদল হয়ে যাচ্ছে না তো স্বাদবদলের অজুহাতে?     
এখন তো আম বছরের প্রায় সবসময় পাওয়া যায়কালের নিয়মঋতুকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে দেশে বিদেশে যে-কোন সময় এখন অনায়াসে দু’টাকা বেশি দিলেই হাতের নাগালে চলে আসে আমI একটা বছরের অপেক্ষাবিশেষ কয়েকটা দিনের আনন্দ কোনটাই আর আগের মতো উপভোগ করা যায় নাI আর এখন তো সবকিছুতেই লেগেছে আধুনিতার ছোঁওয়া আম নিয়ে তৈরী হচ্ছে বাহারি কেকমিষ্টিতার সাথেই  তৈরী হচ্ছে আম দিয়ে মাংসএমনকি ইলিশ মাছওকাঁচা আমের চাটনিআচার এখন বেশ সেকেলে ওই ঠাকুমা দিদিমা আমলের কাঁচা আম দিয়ে এখন পায়েস অবধি রান্না হচ্ছে বাঙালিদের হেঁসেলেI সত্যি বলতে আধুনিক সমাজের বাচ্চারা আজকাল জানেই না স্কুলের গেটের বাইরে থাকা বিটনুন দিয়ে কাঁচা আমআমসি কিনে খাওয়ার মজাটাআমের রসদুধ আর চিনি মিশিয়ে আজকাল আর ঘরোয়া আইসক্রিম বাচ্চারা ভালোবাসে না এখন আমের তৈরী আইসক্রিমেও এসে গেছে আধুনিকতার ছোঁওয়ারোজ রোজ বাজারে আসছে নতুন নতুন সামগ্রীঅতএব জিভের স্বাদ বদলের গ্রিন সিগন্যালI  
সহজলভ্যতা বেশির ভাগ সময়ই ইচ্ছা ও চাহিদা দুটোরই মান কমিয়ে দেয়আমের ক্ষেত্রেও এখন একটু হলেও সেটা হয়েছেবাঙালিরা তাদের ফলের রাজার জন্য এখন আর কালবৈশাখী ঝড়ের অপেক্ষা করে নাগাছের মুকুল দেখে আনন্দে বলে না, “এবছর কিন্তু জমিয়ে আম হবে“, আচার চুরি করেও খেতে হয় না শেষ হওয়ার ভয়েI অকালবোধন যেমন দূর্গাপুজোর মজা নষ্ট করে, অসময়ের আম একদম সেরকমইI  আসলে বাঙালিরা ভুলে যেতে চাইছে পিনে ফেলে আসা দিনগুলোকেকিন্তু অদ্যাপি প্রচলিত কায়দা রপ্ত রতে গিয়ে  আজকাল  হারিয়ে ফেলছে নিজস্বতাটাইI কাল্পনিক হলেও কোনদিন দি  “আম” এর বুলি ফুটতো তাহলে সে নিশ্চয়ই বলতো ” আমাকে আমার মতো থাকতে দাও আমি নিজেকে নিজের  মতো গুছিয়ে নিয়েছি “I তাহলে প্রকৃতির ঘড়ি নিজের নিয়মেই চলতোআর কাঁটাগুলোকে চাইলেও ইচ্ছেমতো আগে পিছনে করা যেতো না … 

Related posts

Leave a Comment